চোরের মায়ের বড় গলা, তামিমাকে সুবাহ!

  

পিএনএস ডেস্ক:বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটার নাসির হোসেনের বিয়ে নিয়ে জল ঘোলা হয়েই চলেছে। এর কারণ নাসিরের স্ত্রী তামিমার আগের বিয়ে। এ নিয়ে মামলা করেছেন তামিমার প্রথম স্বামী রাকিব। তার দাবি তাকে তালাক না দিয়েই তামিমা নাসিরকে বিয়ে করেছেন। এদিকে বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সংবাদ সম্মেলন করে নাসির হোসেন ও তার সদ্য বিবাহিত স্ত্রী তামিমা তাম্মি জানান, তারা কোনো অন্যায় করেননি।

তামিমা বলেন, আমি তালাকের জন্য ২০১৬ সালে এপ্লাই করি। পরের বছর সেটা এপ্রুভ আসে। সব আইন মেনে ডিভোর্স হয়। পরিবার ও তিনি (রাকিব) সবাই এটা সম্পর্কে জানতেন। উনি যেটা করছেন, কেন করছেন, সেটা আপনাদের সবারই বোঝা হয়ে গেছে। উনি যতগুলো কথা বলেছেন, শুধু দুইটা জিনিস, আমাদের বিয়ে হয়েছে আর বাচ্চা আছে ছাড়া, সবগুলোই মিথ্যা।

তারই পরিপ্রেক্ষিতে রাতে নিজের ফেসবুকে কিছু তথ্য তুলে ধরেন সুবাহ। সেখানে ২০১৮ সালের ৪ মার্চ ইস্যু করা তামিমার একটি পাসপোর্ট, রাকিবকে তামিমার পাঠানো ডির্ভোস লেটার এবং ২০১৮ সালে একাধিকবার রাকিব-তামিমার একসঙ্গে সময় কাটানোর ছবি প্রকাশ করেন সুবহা।

পোস্টটির ক্যাপশনে সুবাহ লেখেন, কিছু প্রমাণ দিলাম। জানি না ঘটনা আসল কি। যাচাই করুন, রাকিব ভাইয়াকে ফাঁসানো হচ্ছে এবং হবে। তামিমার পাসপোর্ট ২০১৮ সালের স্বামীর নাম দেওয়া রাকিব হাসান। তাহলে ২০১৬ সালের জাল তালাকনামা আবার কিসের? চোরের মায়ের বড় গলা।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন