মুক্তামনির অস্ত্রোপচার সম্পন্ন

  

পিএনএস ডেস্ক: বিরল রোগে আক্রান্ত সাতক্ষীরার শিশু মুক্তামনির ডান হাতের রক্তনালীর টিউমার অস্ত্রোপচার শেষ হয়েছে। শনিবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে তার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়।

এর আগে সকাল ৮টা ২৫ মিনিটে মুক্তামনিকে অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয়। সকাল সাড়ে ৭টা থেকে তার অপারেশনের প্রস্তুতি নিতে থাকেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের ডাক্তাররা।

ঢামেক হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন জানিয়েছেন, মুক্তামনির অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই এ বিষয়ে ব্রিফ করা হবে।

হাসপাতালের ওটির বারান্দায় মুক্তামনির বাবা-মা ও আত্মীয়-স্বজনরা অপেক্ষা করছেন। তাদের সঙ্গে সেখানে গণমাধ্যমকর্মীরাও আছেন।

গত মঙ্গলবার মুক্তামনির চিকিৎসার জন্য গঠিত ১৩ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড তার বায়োপসি রিপোর্ট পর্যালোচনা করে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেয়।

সাতক্ষীরার কামারবায়সা গ্রামের মুদি দোকানি ইব্রাহীম হোসেনের মেয়ে মুক্তামনি (১২)। জন্মের দেড় বছর পর তার হাতে একটি ছোট মার্বেলের মতো গোটা দেখা দেয়। এরপর থেকে সেটি বাড়তে থাকে। একটা সময় ডান হাত, ছোট আকারের গাছের গুড়ির রূপ নেয়। এতে পচন ধরে এবং পোকা জন্মে।

সম্প্রতি মুক্তামনির এ বিরল রোগ নিয়ে দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর তাকে ঢাকায় পাঠিয়ে সরকারি ব্যবস্থাপনায় চিকিৎসার উদ্যোগ নেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

গত ১২ জুলাই ঢামেক হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে ভর্তি করা হয় মুক্তামনিকে। এতোদিন মুক্তামনির রোগটিকে বিরল রোগ বলা হলেও গত শনিবার তার বায়োপসি করার পর জানা গেছে মুক্তামনির রক্তনালীতে টিউমার হয়েছে যেটাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানে হেমানজিওমা বলা হয়ে থাকে।

ডা. সামন্ত লাল সেন বলেছিলেন, ‘বায়োপসি প্রতিবেদন হাতে পেয়েই মুক্তামনির চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ড শনিবারে অপারেশনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’


পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech