এবার ভালোবাসার ফুলে আগুন লেগেছে!

  

পিএনএস ডেস্ক :ফুল ভালোবাসে না এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া কঠিন। ভালোবাসা ভালোলাগার সঙ্গে ‘ফুল’ নামক উপকরণটা অঙ্গাঙ্গীভাবেই জড়িত। ‘বিশ্ব ভালোবাসা দিবস’ বা ‘ভ্যালেন্টাইন ডে’ সারাবিশ্বের কোটি কোটি প্রেমিকযুগলের জন্য পরম আকাঙ্ক্ষিত একটি দিন। এ দিনটিকে রাঙাতে কতোই না আয়োজনের কথা ভাবেন যুগলরা। যার মূল অনুসঙ্গ রঙ-বেরঙের ফুল। তাই এই ভালোবাসা দিবসকে কেন্দ্র করে কয়েকগুণ বেড়ে যায় ফুলের চাহিদা।

এ দিনটিকে সুযোগ হিসেবে বেছে নিয়েছেন ফুল ব্যবসায়ীরা। ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে গোলাপ বিক্রি করছেন পাঁচগুণেরও বেশি মুনাফায়।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, অলি-গলিতে ফুলের পসরা সাজিয়ে ফুল বিক্রি করছেন অস্থায়ী ফুল বিক্রেতারা। এসব অস্থায়ী দোকানে গোলাপের পাশাপাশি বিক্রি হচ্ছে গাঁদা, রজনীগন্ধা, জিপসি, চেরি, গ্লাডিওলাস।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মনিরুল ইসলাম আরও তিনজন বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে শাহবাগে ফুল কিনতে এসেছেন। তিনি বলেন, আজ ও কালকের জন্য ফুলের চাহিদা অনেক বেশি। এই সুযোগ বুঝে এখানকার দোকানিরা অতিরিক্ত দাম আদায় করছে। কিন্তু ক্রেতারাও বাধ্য হয়েই বেশি দামে ফুল কিনছেন। প্রচুর ফুলের আমদানি, নানান রঙের ফুলের সমাহার এখানে। কিন্তু ফুলের বাজারে আগুন লেগেছে। অতিরিক্ত বেশি দামে ফুল বিক্রি হচ্ছে। তবুও সকাল থেকে ক্রেতাদের চাপ এই ফুলের বাজারে।

শাহবাগের ফুলতলা ফ্লাওয়ার শপ, অহনা ফুল কুঠির, পুষ্পকেন্দ্র, নীলকণ্ঠ, ফুলসজ্জা, শান্তা পুষ্প দোকানগুলো ঘুরে দেখা গেছে, নানা রকমের ফুলের সমাহার সেখানে।

আনিকা পুষ্প বিতানের প্রোপাইটার মো. আবুল কালাম বলেন, পহেলা ফাগুনে বেশ ভালো ব্যবসা হয়েছে। গতকাল (১৩ ফেব্রুয়ারি) সব থেকে বেশি বিক্রি হয়েছে ফুলের তোড়া ও মাথার রিং। পাশাপাশি রজনীগান্ধার মালা, রক্তজবা ও চন্দ্রমল্লিকার সমন্বয়ে মালাও ভালো বিক্রি হয়েছে।

তিনি বলেন, ১৪ ফেব্রুয়ারি গোলাপ ফুল সব থেকে বেশি বিক্রি হয়। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি। ভোর থেকেই বিক্রি শুরু হয়েছে। আমার ধারণা ১৩ ও ১৪ ফেব্রুয়ারি এই দুই দিনে শাহবাগ থেকে চার থেকে সাড়ে চার কোটি টাকার ফুল বিক্রি হবে।

পুষ্পকেন্দ্রের বিক্রয় কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান জানান, বছরে এ দুই দিন ফুলের চাহিদা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। এ সময় ফুলের চাহিদা থাকে প্রচুর। যে কারণে আমারা সবাই আগে থেকেই দুই বিশেষ দিনের প্রস্তুতি নিয়ে থাকি। সব মিলিয়ে কিছুটা বেশি দামে ফুল বিক্রি হয়। অন্যসময়ের তুলনায় আজ ফুল বিক্রি হচ্ছে বেশি, আগামীকালও এর চেয়েও বেশি চাহিদা থাকবে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech