বাজেটে আপনার জন্য কী থাকছে

  

পিএনএস ডেস্ক : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল প্রথমবার বাজেট ঘোষণা করেছেন। বাজেটে সাধারণ মানুষ, কৃষক, ব্যবসায়ী, তরুণ, নারী উদ্যোক্তা ও রপ্তানিকারকদের জন্য সুখবর রেখেছেন তিনি। আবার অনেকের জন্য রয়েছে দুঃসংবাদও। একনজরে দেখে নিন ২০১৯–২০ অর্থবছরের বাজেটে আপনার জন্য কী থাকছে।

রেলে মহাপরিকল্পনা

রেলের আগের মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের কথা উল্লেখ করে সেখানে বরাদ্দ প্রায় ২ হাজার কোটি টাকা বাড়িয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

কৃষিযন্ত্রে ছাড়
বিভিন্ন ধরনের কৃষিযন্ত্রে স্থানীয় ভ্যাট অব্যাহতি দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। এ ছাড়া মাড়াইযন্ত্র বা হারভেস্টের কর কমানোর কথা বলা হয়েছে।

শস্যবিমা
কৃষকের জন্য বাজেটে শস্যবিমা চালুর কথা বলা হয়েছে। অর্থমন্ত্রী বলেছেন, পরীক্ষামূলকভাবে শস্যবিমা চালু করবেন তিনি।

তথ্যপ্রযুক্তিতে বিনিয়োগ
সরকারের প্রতিষ্ঠা করা হাইটেক পার্কে বিনিয়োগ করলে অর্থের উৎস নিয়ে প্রশ্ন করা হবে না। একই সুবিধা পেয়েছে অর্থনৈতিক অঞ্চল।

সঞ্চয়পত্রে উৎসে কর
সঞ্চয়পত্রে মুনাফার ওপরে বাড়তি উৎসে কর আরোপ করেছেন অর্থমন্ত্রী। এতে সঞ্চয়পত্র কিনে মুনাফাবাবদ আপনি যে অর্থ পাবেন সেখান থেকে বাড়তি কর কেটে রাখবে সরকার।

বিদ্যুৎ–সংযোগ থাকলেই...
বাড়িতে বিদ্যুৎ–সংযোগ থাকলে ব্যক্তির কর শনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) থাকতে হবে। এ বিষয়ে নিয়ম পরে আরও পরিষ্কার করবে সরকার।

জমি কেনাবেচা
পৌরসভা পর্যায় পর্যন্ত এক লাখ টাকার বেশি দামের জমি কেনাবেচায় ক্রেতা–বিক্রেতা উভয়ের কর শনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) থাকতে হবে। এটা দলিলে উল্লেখ করতে হবে।


প্রবাসী আয়ে ভর্তুকি
প্রবাসীদের জন্য সুখবর। তাঁরা তাঁদের পাঠানো আয়ে ২ শতাংশ হারে ভর্তুকি পাবেন। এ জন্য ৩ হাজার ৬০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

মুরগির খাবার
গবাদিপশু, মুরগি পালন ও মাছ চাষের কয়েকটি উপকরণে শুল্ক ছাড় দিয়েছে সরকার। ফলে খামারিরা কিছুটা কম দামে এসব উপকরণ পেতে পারেন।

করমুক্ত আয়সীমা একই
ধনীদের সারচার্জের সীমায় ছাড় দিলেও করমুক্ত আয়সীমা আড়াই লাখ টাকাই রেখেছেন অর্থমন্ত্রী। বিগত কয়েক বছরের মতো এ বছরও এ ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দেওয়া হয়নি।

সবার জন্য পেনশন
সবার জন্য পেনশনের উদ্যোগটি আরেকটু এগিয়ে গেল। নতুন বাজেটে অর্থমন্ত্রী সর্বজনীন পেনশনের জন্য কর্তৃপক্ষ গঠনের কথা বলেছেন।

স্বাস্থ্যসেবা
ক্যানসারের ওষুধ তৈরিতে কাঁচামালের ওপর আরও শুল্কছাড় দেওয়া হলো। এতে ব্যয় কমতে পারে।

ফ্ল্যাটে কালোটাকা
ফ্ল্যাট কিনতে কালোটাকা সাদা করার সুযোগ আগেই ছিল। এখন মিলবে জমিতেও। বিনিয়োগেও কালোটাকা সাদা করার সুযোগ থাকছে।

করপোরেট করে ছাড় নেই
যেসব খাতে ব্যবসায়ীরা উচ্চ হারে আয়কর দেন, সেখানে কোনো ছাড় দেওয়া হয়নি। তবে পোশাক খাতে ছাড় দিয়ে ১২ শতাংশ করপোরেট কর বহাল রাখা হয়েছে।

বিড়ি-সিগারেট
বিড়ি-সিগারেট, তামাক ও জর্দার দাম বাড়বে। বাজেটে এ ক্ষেত্রে কর বাড়ানো হয়েছে।

ফ্রিজের উপকরণে ছাড়
দেশীয় উৎপাদকেরা যে ফ্রিজ তৈরি করেন তার উপকরণ আমদানিতে কর ছাড় দিয়েছে সরকার। তবে বাড়বে ওভেনের দাম।

গাড়ি নিবন্ধন
ব্যক্তিগত সব গাড়ি নিবন্ধন, রুট পারমিট, ফিটনেস, মালিকানা সনদ নেওয়া ও নবায়নের মাশুলের ওপর ১০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ। এতে ব্যয় বাড়বে।

টায়ারের দাম বাড়বে
মোটরসাইকেলের বিদেশি টায়ারে কর বাড়ানো হয়েছে। এতে টায়ারের দাম বাড়তে পারে।

শেয়ারবাজারে প্রণোদনা
পুঁজিবাজারসংশ্লিষ্টদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে বিনিয়োগকারীদের করমুক্ত লভ্যাংশ আয়ের সীমাও বাড়ানো হয়েছে। এখন থেকে বিনিয়োগকারীদের ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত লভ্যাংশ আয়কে করমুক্ত করা হয়েছে।

পোশাকে আরও সুবিধা
পোশাক খাত আরও সুবিধা পেল। এ খাতে ১ শতাংশ ভর্তুকি দেবে সরকার। এতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২ হাজার ৮২৫ কোটি টাকা।



হোটেলে থাকার খরচ বাড়বে
হোটেলে রাতযাপনে ভাড়ার ওপর উৎসে আরোপ করেছে সরকার। এতে হোটেল সেবার ব্যয় আরও কিছুটা বাড়তে পারে।

ল্যাপটপে কর রেয়াত নেই
কম্পিউটার ও ল্যাপটপ কেনার পেছনে বিনিয়োগ দেখিয়ে যে কর রেয়াত মিলত, সেটা আর মিলবে না।

দেশীয় জুতা
দেশে জুতা, স্যান্ডেল তৈরিতে ব্যবহৃত পাঁচটি উপকরণে নিয়ন্ত্রণমূলক শুল্ক ও সম্পূরক শুল্ক মওকুফ করেছেন অর্থমন্ত্রী। ফলে দেশীয় পাদুকাশিল্পে উৎপাদন ব্যয় কমতে পারে।

অগ্নিনির্বাপণসামগ্রী
অগ্নিদুর্ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের বাইরে সেবাদানকারী হোটেল, হাসপাতাল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ইত্যাদি ক্ষেত্রে রেয়াতি হারে অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্রপাতি আমদানির সুযোগ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন।

কেনাকাটায় বাড়তি ব্যয়
ব্র্যান্ডের দোকান থেকে কেনাকাটায় খরচ বাড়বে। এ ক্ষেত্রে ভ্যাট বাড়িয়েছে সরকার।

তরুণ উদ্যোক্তা
বাজেটে তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য ১০০ কোটি টাকার একটি বরাদ্দ রাখা হয়েছে। তরুণদের ব্যবসায়িক উদ্যোগে সহায়তা দেবে এ তহবিল।

কথা বলতে বাড়তি ব্যয়
নতুন বাজেটে মুঠোফোন সেবায় সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। সিম কার্ডের ওপর কর দ্বিগুণ করে ২০০ টাকা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে বাড়ল মুঠোফোন কেনা ও কথা বলার খরচ।

স্মার্টফোন আরও খরুচে
স্মার্টফোন আমদানিতে শুল্ক ১০ শতাংশ বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করা হয়েছে। এতে দাম ব্যাপক বাড়বে। ফিচার ফোনের কর আগের মতোই।

মুঠোফোনের উপকরণ
তথ্যপ্রযুক্তি খাতে চারটি উপকরণে আমদানি শুল্ক কমানো হয়েছে বাজেটে। সিম খোলার পিনের শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ করা হয়েছে। একই হারে কমানো হয়েছে চার্জার কানেকটর পিনের শুল্ক।

এমপিওভুক্তি আবার
৯ বছর পর আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমপিওভুক্তির সুখবর দিলেন অর্থমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, এ জন্য বাজেটে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

বেকারদের জন্য সুখবর
২০৩০ সালের মধ্যে ৩ কোটি কর্মসংস্থান তৈরি করে বেকারত্বের অবসান ঘটাতে চান অর্থমন্ত্রী। বিশেষ জনগোষ্ঠীর প্রশিক্ষণে ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রেখেছেন তিনি।

নিত্যপণ্য
এবারের বাজেট তেল-চিনির দাম বাড়াবে। চিনি আমদানিতে বাড়তি শুল্ক আরোপ করা হয়েছে। ভোজ্যতেলে আরোপ করা হয়েছে ভ্যাট।

ধনীদের সারচার্জ ও ছাড়
ধনীদের সম্পদের ওপর সারচার্জ আরোপ করেছেন অর্থমন্ত্রী। অবশ্য সারচার্জে সম্পদের সীমায় ছাড় দেওয়া হয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech