বিচাহীনতার কারনেই নারী নির্যাতন হচ্ছে : গোলাম মোস্তফা ভু্ইয়া

  

পিএনএস : বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেছেন, বিচারহীনতার সংস্কৃতি চালু হওয়ার কারণে দেশে ধর্ষণ, খুন, রাহাজানি বৃদ্ধি পেয়েছে। অপরাধীরা প্রভাবশালী ও রাজনৈতিক পরিবারের সদস্য হওয়ার কারণে সঠিকভাবে তদন্ত ও বিচার হয় না।

তিনি বলেন, বিভিন্ন অপরাধের সাথে যুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ ও সুষ্ঠ বিচার প্রক্রিয়া চালু করতে পারলে এ ধরণের অপরাধ প্রবণতা রোধ করা সম্ভব।

বৃহস্পতিবার নয়াপলন্টস্থ যাদু মিয়া মিলনায়তনে ‍"দুই ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায়" বাংলাদেশ মহিলা ন্যাপ আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মহিলা ন্যাপ সমন্বয়কারী অধ্যাপিকা শিউলী সুলতানার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন ন্যাপ সম্পাদক মাঃ কামাল ভুইয়া, মতিয়ারা চৌধুরী মিনু, নগর সদস্য সচিব মোঃ শহীদুননবী ডাবলু, জাতীয় ছাত্র কেন্দ্রের সমন্বয়কারী সোলায়মান সোহেল, মহিলা ন্যাপ সমন্বয় কমিটির সদস্য আমেনা খাতুন মনি, এডভোকেট সুলতানা বেগম, ফাতেমা আক্তার লাকি, রিভা আক্তার, সালমা সুলতানা প্রমুখ।

গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেছেন, কোনো একটি নারী নির্যাতনের যদি দৃষ্টান্তমূলক বিচার এবং কঠোর শাস্তি হতো তাহলে নির্যাতক ও ধর্ষকরা পরবর্তী ঘটনা ঘটাতে সাহস পেত না। বরং উল্টোটাই হচ্ছে। রাষ্ট্র, সরকারি বাহিনী, আইন শৃঙ্খলাবাহিনী, ক্ষমতাবানরা ধর্ষণকারীর পক্ষ নিচ্ছে। এজন্য এর বিরুদ্ধে নারী সমাজকেই সমাজের সকল অংশকে নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, নারীর নিরাপদ জীবন যাপনের দায়িত্ব রাষ্ট্রকেই নিশ্চিত করতে হবে। অবিলম্বে সব ধর্ষণ নির্যাতনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

তারা বলেন, একটি সমাজে নারীর কি অবস্থান হবে তা আসলে নির্ভর করে রাষ্ট্রের কি দৃষ্টিভঙ্গি তার উপর। কাজেই নারীর নিরাপত্তার দায়িত্ব এবং নারী-পুরুষ সমতার দায়িত্ব রাষ্ট্রকেই নিতে হবে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech