স্ত্রীর গলা কেটে হত্যার পর থানায় আত্মসমর্পণ - মফস্বল - Premier News Syndicate Limited (PNS)

স্ত্রীর গলা কেটে হত্যার পর থানায় আত্মসমর্পণ

  

পিএনএস ডেস্ক: নিজের স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছেন এক ব্যক্তি। বুধবার ভোরে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত নারীর নাম নাছিমা খাতুন (৩৬)। তিনি কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামের জালালউদ্দিন সানার স্ত্রী এবং একই গ্রামের আনোয়ার মোড়লের মেয়ে।

এই দম্পতির মেয়ে কলেজ ছাত্রী রাবেয়া খাতুন ও স্কুল ছাত্রী খাদিজা খাতুন জানান, তাঁদের সংসারে অভাবের কারণে বাবা জালাল সানার সঙ্গে মা নাছিমা খাতুনের প্রায়ই ঝগড়া হতো।

সবশেষ মঙ্গলবার রাত ১০টার পরে তারা দুই বোন ঘুমানোর আগে আগে বাবা ও মায়ের মধ্যে ঝগড়া শুনতে পান। বিষয়টিকে রোজকার ঝগড়া ভেবে ঘুমিয়ে পড়েন তাঁরা। সকালে উঠে দেখতে পান তাদের মায়ের গলাকাটা লাশ। পরে তাঁদের বাবা জালাল সানা কালিগঞ্জ থানায় আত্মসমর্পণ করেন।

কালিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক সোহরাব হোসেন জানান, পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে আজ ভোরে স্ত্রী নাছিমা খাতুনকে ধারালো দা দিয়ে জবাই করে হত্যা করেছেন বলে থানায় এসে জানিয়েছেন জালাল সানা। স্ত্রীকে হত্যা করে অনুতপ্ত হয়েই তিনি থানায় আসেন।

পরে তাঁকে নিয়েই ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নাসিমা হত্যার ঘটনায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে জানিয়ে সোহরাব হোসেন জানান, এই মামলাতেই জালাল সানাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech