গরমে ফ্যাশনের অনুষঙ্গ সানগ্লাস

  

পিএনএস ডেস্ক: কাঠফাঁটা এই রোদের দিনে বাইরে বের হওয়ার জন্য চোখে রাখা চাই সানগ্লাস। রোদের কবল থেকে রক্ষা করার পাশাপাশি এটি আপনার লুকেও আনে স্টাইলিশ আমেজ। প্রয়োজনীয় এ সামগ্রীটি হয়ে ওঠেছে ফ্যাশনের অনুষঙ্গ।

ব্র্যান্ডিং এর এই যুগে এসে আমাদের সামনে হাজার হাজার মডেলের সানগ্লাস। কোনটা আপনার চেহাররা সাথে যায় সেটা বুঝবেন কী করে? কোন সানগ্লাসে আপনাকে মানাবে তা নির্ভর করে আপনার মুখের আদলের উপর। তাই বেছে নিতে হবে ব্যবহারে সুবিধাজনক এবং মুখের সঙ্গে মানানসই, এমন একটি সানগ্লাস।

সানগ্লাসচোখের চারপাশের ত্বক রোদে পুড়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে। প্রখর রোদে আরাম দেয় চোখে ৷ আবার কিছু সানগ্লাস আরাম না দিয়ে ক্ষতি করতে পারে৷ যেমন বাঁকা গ্লাস বা ফ্রেম শক্ত হলে চোখে ব্যথা হতে পারে। ভালো সানগ্লাসের লেন্স অতিবেগুনি রশ্মির ৯৯ থেকে ১০০ শতাংশ আটকে দিতে পারে। এ ছাড়া দৃশ্যমান রোদের ৭৫ থেকে ৯০ শতাংশ থেকে চোখকে আড়াল করে রাখেআলো ও রং সঠিকভাবে বুঝতে হলে ধূসর সানগ্লাস ভালো।

সানগ্লাস কেনার আগে রাখতে হবে, এর প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে চোখের সুরক্ষা। সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি যাতে চোখে না পড়ে, সে জন্য চশমা কেনার সময় তা আলট্রাভায়োলেট লাইট সুরক্ষিত কি না, তা অবশ্যই দেখে নেবেন।

কেনার সময় দেখে নিতে হবে সানগ্লাসের ফ্রেম আপনার মুখের গড়নের সঙ্গে যায় কি না, তা দেখে নিন। মুখের আকারের সঙ্গে ফ্রেমের আকার বাছাই করতে কয়েকটি চশমা পরে দেখুন। মুখ বড় হলে বড় ফ্রেম নিন। মুখের গড়ন ছোট হলে ছোট ফ্রেমই ভালো। চশমা কিনতে যাওয়ার আগে নিজের মুখের সঙ্গে কেমন চশমা মানাবে, তা ধারণা করে নিন।

কেবল মাননসই হলেই হবে না, ফ্রেম কিসে তৈরি- সেটিও দেখতে হবে। পরে ফ্রেমের কারণে সানগ্লাস পরে অস্বস্তি হতে পারে। চশমার ব্যবহার, যত্ন ও স্বস্তির কথা বিবেচনায় ফ্রেমের উপাদান কিসে তৈরি, তা ঠিক করুন। আপনার সঙ্গে মানানসই হবে, এমন ধাতব, প্লাস্টিক বা টাইটেনিয়াম ফ্রেম নিতে পারেন।

ফ্যাশনেবল সানগ্লাস কেনার সময় লেন্সের বিভিন্ন রং থেকে বেছে নিতে পারেন। সবুজ, ধূসর, বাদামি, হলুদ, সোনালি, গোলাপি বা নীল রঙের মধ্যে থেকে পছন্দ করুন। সানগ্লাস কেনার সময় মানের সঙ্গে আপস করবেন না। এটি যাতে কিছুদিন টেকে, এমন সানগ্লাসই বেছে নিন।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech