ঢাকায় নিহত জঙ্গির একজন চট্টগ্রামের নিখোঁজ নাফিস

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পেছনে নাখালপাড়ায় জঙ্গি আস্তানায় নিহত জঙ্গির একজন চট্টগ্রামের নিখোঁজ হওয়া কিশোর নাফিস উল ইসলাম। বৃহস্পতিবার ঢাকায় নিহত দুই জঙ্গির পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার জন্য র‌্যাব ছবি প্রকাশের পর রাতে নাফিসকে শনাক্ত করে পুলিশ ও তার পরিবার।

চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার এ এ এম হুমায়ন কবীর বলেন, নাফিস নিখোঁজ হওয়ার জিডি তদন্ত করতে গিয়ে মাদারবাড়ি জঙ্গি আস্তানার সন্ধান মেলে। বৃহস্পতিবার রাতে নাখালপাড়ায় নিহত জঙ্গিদের সনাক্ত করতে র‌্যাব নাফিসের ছবি প্রকাশ করলে নাফিসের বিষয়টি জানতে পারি। তার পরিবারও নাফিসকে সনাক্ত করেছে।

কে এই নাফিস

ঢাকার নাখলপাড়ায় নিহত নাফিস নগরীর চকবাজার এলাকায় বড় হলেও তার গ্রামের বাড়ি চন্দনাইশ উপজেলার পশ্চিম কানাইমাদারি গ্রামে। তার বাবা নজরুল ইসলামের চট্টগ্রাম কলেজ পূর্ব গেইট এলাকায় একটি ডিপার্টমেন্টাল স্টোর রয়েছে। নাফিস কাজেম আলী স্কুল এন্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিলেন। নজরুল ইসলামের দু সন্তানের মধ্যে নাফিস বড় ছিল।

নাফিসের পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, ২০১০ সালে নাফিসের বাবা-মায়ের সম্পর্কছেদ হয়। বাবা মায়ের সম্পর্কছেদের পর থেকে উদাসিন হয়ে যান নাফিস। লেখাপড়ায় মনযোগ ছিল না। স্কুল ছুটি হলেও কখনো কখনো সন্ধ্যায় বাসায় ফিরতো। এসব বিষয় নিয়ে তাকে মাঝে মাঝে বকাঝকা করতো অভিভাবকরা। গত ৬ অক্টোবর দুপুরে বাসা থেকে বের হবার পর নাসিফ আর ঘরে ফেরেনি। চলে যাবার সময় দোকান থেকে ৬০ হাজার টাকাও নিয়ে যায়। নিখোঁজের পর তার রুম থেকে একটি মোবাইল সেট, হিজবুত তাহরীর লিখা বই ও বেশ কিছু কাগজপত্র উদ্ধার করে পুলিশ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, বাসা থেকে বের পর নাসিফ শেরপুর নকলায় চলে যায়। সেখানে দুই– তিনদিন অবস্থানের পর ঢাকার যাত্রাবাড়ি আসে। নভেম্বরের শেষের দিকে নগরীর সদরঘাটে এসেছিল। সদরঘাটের আস্তানায় দুই জঙ্গি সদস্য ধরা পড়ার বিষয়টি টের পেয়ে যাত্রাবাড়ির বাসা থেকে সরে পড়ে। যার কারণে যাত্রাবাড়িতে অভিযানে গিয়েও সিটিটিসির কর্মকর্তারা তার নাগাল পায়নি।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech