অপরাধ

ওয়াটার বোর্ডের ইউটার্ন (পর্ব-৪) ■ যোগ্যতার চেয়ে জ্যেষ্ঠতা অধিকতর মূল্যায়িত হওয়ায় বোর্ডের কার্যক্ষমতা কমছে ■ সৃষ্টি হচ্ছে নানাবিধ সমস্যার

  28-12-2021 05:18PM

পিএনএস(মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার): পানি উন্নয়ন বোর্ডে এখন দক্ষতা, যোগ্যতা এবং সততার চেয়ে তথাকথিত জ্যেষ্ঠতাকে বেশী প্রাধান্য দেওয়ায় বোর্ডের কার্যক্ষমতা হ্রাস পাচ্ছে। ফলে এপিআর (এসিআর) প্রথা আদৌ কোন কাজে আসছে না। বোর্ডের বিভিন্ন পর্যায়ে চাকুরী করাকালীন যে সমস্ত অফিসারদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির নানা অভিযোগে উত্থাপিত হওয়ায় তাদের নামের আগে বিভিন্ন অর্থবোধক বিশেষণ বা তকমা সংযুক্ত হয়েছিল তারাও অবলীলায় পদোন্নতি পেয়ে যাচ্ছেন। পুরো চাকুরী জীবনে যাদের একটি ডিপিপি প্রণয়ন কিংবা প্রকল্প বাস্তবায়নের অভিজ্ঞতা নেই

ওয়াটার বোর্ডের ইউটার্ন (পর্ব-৩) ■ হাওর ট্র্যাজেডীর 'মাস্টার মাইন্ড' এখন ‘মৌয়াল’ ■ সংশোধন করার এখনই সময়-

  20-11-2021 01:00PM

পিএনএস (মো: শাহাবুদ্দিন শিকদার): ২০০৭ সালের হাওর ট্র্যাজেডীর ‘মাস্টার মাইন্ড’ হিসেবে কুখ্যাত প্রকৌশলী এখন মৌয়ালের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। মৌমাছি যেমন তিল তিল করে মধু সংগ্রহ করার পর মৌয়াল কৃত্রিম ধোঁয়া দিয়ে মৌমাছিদের তাড়িয়ে মৌচাকের সব মধু ছিনিয়ে নিয়ে যায় ঠিক তেমনি এই প্রকৌশলী মাঠ পর্যায়ের প্রকৌশলীদের এধার-ওধার করে সব কিছু নিজেই উদরস্থ করেছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের ডিপিপি প্রণয়নের পর যখন একটি প্রকল্প আলোর মুখ দেখে তখন বাপাউবো’র দক্ষিণাঞ্চলের এই কর্তা বাবু নড়েচড়ে বসেন। দরপত্র আহবানের

ওয়াটার বোর্ডের ইউটার্ন (পর্ব-২) ■ বাড়ছে দুর্নীতি, অনিয়ম ও টেন্ডার জালিয়াতি ■ নন সিডিউল আইটেম ব্যবহার করে ইজিপি জালিয়াতি

  15-11-2021 03:49PM

পিএনএস (মো: শাহাবুদ্দিন শিকদার): পাউবো কখনো বালিশ কান্ড বা পর্দা কান্ড করেনি। দেশের বিদ্যমান অন্যান্য ইঞ্জিনিযারিং ইউনিটের তুলনায় পানি উন্নয়ন বোর্ডে দুর্নীতি ও অনিয়ম একেবারেই কম। ২০০৯ সালের পর থেকে দুর্নীতি, অনিয়ম ও জালিয়াতি সহনীয় পর্যায়ে নেমে এসেছিল। তার কারণ, সরকার প্রধান স্বয়ং এই খাত সম্পর্কে ব্যাপক খোঁজ-খবর রাখেন। অপরদিকে, দুর্নীতির ব্যাপারে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের ‘জিরো টলারেন্স’ নীতির কারণে পাউবো’র সকল কাজে স্বচ্ছতা বৃদ্ধি পেয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি কতিপয় প্রকৌশলীর অস্বচ্ছতার কারণে,

ওয়াটার বোর্ডের ইউটার্ন (পর্ব-১) ■ বাড়ছে দুর্নীতি, অনিয়ম ও টেন্ডার জালিয়াতি

  14-11-2021 04:58PM

পিএনএস (মো: শাহাবুদ্দিন শিকদার): বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড হঠাৎ করেই ইউটার্ন করছে। ২০০৯ সালের আগে পাউবো’র যে নেতিবাচক ভাবমূর্তি ছিল সেদিকেই ফিরছে প্রতিষ্ঠানটি। ২০০৯ সালের আগে যে সমস্ত প্রেতাত্মা মাঠ পর্যায়ে দুর্নীতির মহীরুহে পরিণত হয়েছিল সেই চিহ্নিত দুর্নীতিবাজরাই এখন পাউবো’র কয়েকটি জোনের হর্তাকর্তা। এদের অনেকেই দীর্ঘদিন মাঠ পর্যায়ে নির্বাহী প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত থাকা অবস্থায় নিজেদেরকে দুর্নীতির বরপুত্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছিল। অবৈধভাবে আয় করেছিল কোটি কোটি টাকা। তাদের অসহ্য জ্বালাতন সহ্য

এনবিআর ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নজরদারী এড়িয়ে কোটি কোটি টাকার রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে চাইনীজ ড্রেজিং কোম্পানীর অর্থ পাঁচারঃ ঠিকাদারী ব্যবসার নীতিমালা উপেক্ষিতঃ পানি সম্পদ ও নৌ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা

  24-06-2021 05:29PM

পিএনএস (মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার) : দেশের ড্রেজিং সেক্টরে কিছু সংখ্যক বিদেশী কোম্পানী আর্থিক শৃঙ্খলা এবং দরপত্রের বিধি-বিধান ভঙ্গ করে বেআইনীভাবে ঠিকদারী ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। কিছু সংখ্যক প্রকৌশলী এবং প্রকল্প পরিচালক এই সমস্ত কোম্পানীকে সহযোগিতা করে নিজেরা আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছে।সূত্রমতে, আলোচিত বিদেশী ড্রেজিং কোম্পানিগুলোর মধ্যে একটি ড্রেজিং কোম্পানী চীন থেকে আগত। এই কোম্পানীটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্যাপিটাল ড্রেজিং পাইলট প্রজেক্টের কাজ করতে বাংলাদেশে এসেছিল। কোম্পানীটি বাংলাদেশে আসার সময়

মাত্র ৬ বছর চাকুরী করেই পাউবো’র দুইটি ডিভিশনের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশলীঃ অন্তরালে ৭’শ কোটি টাকার প্রকল্পে লুটপাটের লীলাখেলাঃ প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ জরুরী-

  28-04-2021 04:56PM

পিএনএস (মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার) : চাকুরীর বয়স মাত্র ৬ বছর। এসডিই পদে অভিষেক হলেও এখনো অভিজ্ঞতা সঞ্চিত হয়নি। কিন্ত কি করে, কিসের বিনিময়ে, কাকে সন্তুষ্ট করে এক সাথে দুইটি ডিভিশনের নির্বাহী প্রকৌশলীর দায়িত্ব এক সাথে লাভ করা যায় তা তিনি ভাল করেই জানেন। বাজারে প্রচার আছে, এই চেয়ার দুইটি লাভ করতে মোটা অংকের টাকা খরচ করতে হয়েছে। কিন্তু একজন এসডিই কি করে দুইটি ডিভিশনের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী প্রকৌশলী হয় তা নিয়ে সমালোচনা বাড়ছে। পাউবো’র জনৈক শীর্ষ কর্তা যখন খুলনার প্রধান প্রকৌশলী ছিলেন তখন সাতক্ষীরায়

পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের ব্যাপক সাফল্যঃ সুনামগঞ্জের হাওরে এখন যৌবনের খেলা (পর্ব-১)

  01-04-2021 08:23PM

পিএনএস (মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার) : সুনামগঞ্জের হাওরে এখন যৌবনের খেলা। সারা হাওর জুড়ে সবুজ ধানের শীষ বিকাশের মেলা। চলছে বাতাসের দোলাচলে পরাগায়নের জীবন বিস্তৃতি। এবার কৃষকের মুখে, কিষাণীর হৃদয়ে খেলে যেতে পারে হাস্যরোল। গোলায় উঠতে পারে সোনালী ধান। লক্ষ কৃষকের স্বপ্নকে এভাবেই বাস্তবায়নের নেশায় মাতাল করেছে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়। মাঠে নিদ্রাহীন পরিশ্রম করেছে পাউবোর যোদ্ধারা। এভাবেই হাওরে তাদের পরিশ্রমেই কৃষকের গোলায় প্রায় প্রতি বছরেই উঠে রাশি রাশি ধান। মুক্তিযুদ্ধের অনেক আগেই এই যুদ্ধ শুরু হয়েছে।

হাওরের পিআইসি গঠন এবং পরবর্তী কার্যক্রমে ধীরগতিঃ মনিটরিং সংকটঃ প্রকৌশলীরা হানিমুন মেজাজে

  01-02-2021 05:43PM

পিএনএস (মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার) : পরপর তিন বছর হাওর অঞ্চলে আগাম বন্যা না হওয়ায় হাওর অঞ্চলের পাউবো’র প্রকৌশলীদের আত্মবিশ্বাস অতি মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে করে হাওর অঞ্চলে পিআইসি গঠন এবং প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতি পরিলক্ষিত হচ্ছে। চলতি বছর ২০১৭ইং সালের মতো আগাম বন্যা হলে পাউবো এবং পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় বিপাকে পড়তে পারে। ক্ষুণ্ন হতে পারে পানি সেক্টরের ভাবমূর্তি। হাওর অঞ্চলের প্রকৌশলীদের কাজ-কর্ম নিয়ে বোর্ডের যথাযথ মনিটরিং না থাকায় সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা কাজ-কর্মে অনেকটা উদাসীনতা দেখাছেন। তাঁদের

পাউবো’র ডিজাইন ইউনিটকে ধ্বংসের ষড়যন্ত্র এখনো থামেনিঃ পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা- (পর্ব-২)

  19-11-2020 06:48PM

পিএনএস (মোঃ শাহাবুদ্দিন শিকদার) : অবসর জীবনে আরাম-আয়েস এবং টাকা-পয়সা উপার্জন অব্যাহত রেখে আখের গোছাতে গিয়ে পাউবো’র ডিজাইন ইউনিটকে ধ্বংসের ষড়যন্ত্র এখনো থামেনি। মন্ত্রণালয় থেকে শুরু করে পাউবো’র প্রতিটি জোন, সার্কেল এবং ডিভিশনে এখন আলোচনা চলছে পাউবো’র ডিজাইন ইউনিট নিয়ে। একজন বিদেশীর ব্যর্থ ফর্মূলাকে গিলানোর ষড়যন্ত্র করছে পাউবো’র একটি প্রভাবশালী চক্র যারা আসন্ন ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। অবসর জীবনে যাতে কনসালট্যান্ট হিসেবে বিদেশী ব্যক্তির সাথে কাজ করতে পারেন সেই ধান্ধা পূরণে তারা পাউবো’র ডিজাইন

পাউবো’র ডিজাইন ইউনিটকে ডোবানোর ষড়যন্ত্র ॥ মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা-(পর্ব-১)

  16-11-2020 07:30PM

পিএনএস (মো: শাহাবুদ্দিন শিকদার) : অবশেষে পাউবো’র ডিজাইন ইউনিটকে নিয়ে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। পাউবো’র অহংকার ডিজাইন ইউনিটের বিভিন্ন গ্রহণযোগ্য ও মানসম্মত ডিজাইনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে একজন বিদেশীর ব্যর্থ ফর্মূলাকে গিলানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে একটি চক্র। এই বিদেশী ব্যক্তির রিভার মরফোলজী, হাইড্রোলজী কিংবা রিভার ম্যানেজমেন্ট টেকনোলজীর উপর কোন প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশুনা নেই। নেই কোন সার্টিফিকেট। কারো কারো মতে, এই তথাকথিত বিদেশী ডিজাইনারের লেখাপড়ার দৌড় বাংলাদেশের ইন্টারমিডিয়েটেরও নীচে। বাংলাদেশে এই বিদেশী তথাকথিত