ভারতের সঙ্গে যে কোনো সময় চিনের যুদ্ধ শুরু

  

পিএনএস ডেস্ক : সীমান্ত নিয়ে অশান্তির মাঝেই যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়ে তিব্বতে সেনা সাজাল বেজিং। একদিকে যখন ডোকলাম নিয়ে ভারতের সঙ্গে অশান্তি চলছে, তার মাঝেই প্রচুর যুদ্ধাস্ত্র নিয়ে তিব্বতে লাইভ-ফায়ার এক্সারসাইজ করল চিনা আর্মি।


দক্ষিণ-পশ্চিম চিনের তিব্বতে এই মহড়া হয়েছে বলে জানিয়েছে চিনের সংবাদমাধ্যম China Central Television. তবে ঠিক কবে বা কখন এই মহড়া হয়েছে তা জানা যায়নি। তবে একটি ফুটেজ দেখিয়ে বলা হয়েছে, চিনা আর্মির তিব্বত মিলিটারি কমান্ড এই মহড়া চালিয়েছে। এটি চিনের অন্যতম মাউন্টেন ব্রিগেড। এই তিব্বত কমান্ডই ভারত-চিন সীমান্ত বা লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোলের (LAC) দায়িত্বে রয়েছে।

রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে বয়ে চলা ব্রহ্মপুত্রের ধারে দীর্ঘদিন ধরে ছিল এই বাহিনী। হামলা হলে কিভাবে একসঙ্গে চিনের সব বাহিনী লড়াই করবে, সেটাই ছিল এই মহড়ার মূল বিষয়। অনলাইনে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, চিনা সেনা অ্যান্টি-ট্যাংক গ্রেনেড, মিসাইল ও কামান নিয়ে এই ড্রিল চালাচ্ছে। ১১ ঘণ্টা ধরে চলেছে এই মহড়া। এর আগে তিব্বতের রাজধানী লাসায় গত ১০ জুলাই একটি ড্রিল করে তিব্বতের মোবাইল কমিউনিকেশন এজেন্সি। সেখানে একটি অস্থায়ী মোবাইল নেটওয়ার্ক তৈরি করে জরুরিকালীন অবস্থার যোগাযোগ ব্যবস্থা খতিয়ে দেখা হয়।

চিনের সেনা মহড়ায় ছিল চিনের তৈরি লাইট ব্যাটল ট্যাংক ও আরও অনেক অত্যাধুনিক অস্ত্র। গত প্রায় এক মাস ধরে ভারতের সঙ্গে সীমান্ত সমস্যা নিয়ে ভারতের সঙ্গে অশান্তি চলছে চিনের। বারবার ভারতকে যুদ্ধের হুমকি দিয়ে চলেছে বেজিং। চিনা আর্মি ভারতে ঢুকে রাস্তা তৈরির কাজে বাধা দিয়েছে বলে অভিযোগ।


পিএনএস/জে এ মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech