বুয়েটে রাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষণা, ১৯ আসামি বহিষ্কার!

  

পিএনএস ডেস্ক: আবরার হত্যার পরিপ্রেক্ষিতে বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করেছে কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে আবারার হত্যা ১৯ আসামিকে বহিষ্কার করা হয়েছে। শুক্রবার শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ভিসির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

শুক্রবার বিকালে বুয়েট অডিটোরিয়ামে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এক বৈঠকের শুরুতেই উপাচার্য তাদের এ দুটি দাবি পূরণের কথা জানান। তিনি শিক্ষার্থীদের বলেন, আবরার হত্যাকাণ্ডে এজহারভূক্ত বুয়েটের ১৯ আসামিকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া এ হত্যাকাণ্ডের ক্ষতিপূরণ দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে। এছাড়া বুয়েটে ছাত্ররাজনীতিও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এর আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ না করার পক্ষে নিজের অবস্থান ব্যক্ত করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) প্রশাসন চাইলে তাদের ক্যাম্পাসে ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধ করতে পারে বলে মত দেন তিনি।

আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে ১০ দফা দাবি নিয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলামের সঙ্গে বিকাল ৫টার দিকে বৈঠকে বসেন শিক্ষার্থীরা। সেখানেই ছাত্র রাজনীতি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, বুয়েটের তড়িৎ কৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আবরার ফাহাদকে রবিবার রাতে তাকে শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষ থেকে ডেকে নিয়ে ২০১১ নম্বর কক্ষে বেধড়ক পেটান বুয়েট ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে রাজধানীর চকবাজার থানায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech