ভারতে নিষিদ্ধ হচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট!

  

পিএনএস ডেস্ক:দিল্লিতে চলছে ভারত-শ্রীলঙ্কার তৃতীয় টেস্ট। যেখানে খেলতে গিয়ে দূষণে জেরবার শ্রীলঙ্কার খেলোয়াড়রা। এর ফলে বার বার আলোচনায় আসছে দিল্লির বায়ু দূষণের বিষয়টি। এতে আগামী ২০২০ পর্যন্ত কোনও টেস্ট ম্যাচ দিল্লিতে না হওয়ার সম্ভবনা দেখা দিয়েছে।

বিসিসিআই-এর রোটেশন পদ্ধতিতে এমনিও এখনই ফিরোজ শাহ কোটলার কোনও আন্তর্জাতিক ম্যাচ পাওয়ার কথা নেই। আন্তর্জাতিক খেলার ভেন্যু হিসেবে দিল্লি নিয়ে ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। এর মধ্যেই কোনও রকমে হয়েছে ম্যারাথন। চলছে টেস্ট ম্যাচও। ম্যারাথন হলেও টেস্ট ম্যাচের সঙ্গে সঙ্গেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। প্রথম দিন থেকেই শ্বাসকষ্টের অভিযোগ জানিয়েছে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাররা। অ্যান্টি পলিউশন মাস্ক পরে খেলতে হচ্ছে ক্রিকেটারদের।

বিসিসিআই-এর পক্ষ থেকে এক কর্মকর্তা বলেন, 'রোটেশন পদ্ধতিতে ইতিমধ্যে একটি ওয়ানডে নভেম্বরে ও একটি টেস্ট পেয়েছে দিল্লি। পরবর্তী সিরিজ দিল্লিতে হওয়ার সম্ভবনা নেই। অন্য ভেন্যুও অপেক্ষায় রয়েছে। '

ইন্ডিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন দূষণের জন্য দিল্লি ম্যারাথন বাতিল করার উপদেশ দিয়েছিল। কিন্তু আয়োজকরা বিপুল ক্ষতি হয়ে যাবে ভেবে তার মধ্যেই আয়োজন করে। তারপরই শুরু হয় এই টেস্ট ম্যাচ। দূষণের জন্য দ্বিতীয় দিন ২৬ মিনিট খেলাও বন্ধ থাকে।

বিসিসিআই-এর কার্যনির্বাহী সচিব অমিতাভ চৌধুরী সোমবার স্বীকার করে নিয়েছিলেন, এই ঘটনার পর এই সময়ে দিল্লিতে টেস্ট দেওয়া নিয়ে অবশ্যই ভাবনা-চিন্তা করা হবে। যদিও কোটলার ২০২০ পর্যন্ত ম্যাচ না পাওয়ার কারণ হিসেবে রোটেশন পদ্ধতিকেই সামনে রাখছে বিসিসিআই। যদিও নেপথ্যে ঘুরছে দূষণের জন্য শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়দের অসুস্থতা।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech