জোড়া গোলে ফিরলেন রোনালদো

  

পিএনএস ডেস্ক : ম্যাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি চাইলেই নতুন পেশায় যেতে পারেন। এ সপ্তাহেই ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন, সাসসুয়েলোর বিপক্ষেই গোল পাবেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। সিরি ‘আ’তে প্রথম তিন ম্যাচে জুভেন্টাসের জয়ের চেয়েও যে রোনালদোর গোল না পাওয়া নিয়ে তাঁকে বেশি কথা বলতে হয়েছে। অ্যালেগ্রি তাই এ ম্যাচের আগেই জানিয়ে দিয়েছেন, আজ অন্তত ক্লাবের রেকর্ড দলবদলের গোল না পাওয়া নিয়ে কথা বলতে হবে না। রোনালদো কোচের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন। রোনালদোর জোড়া গোলে সাসসুয়েলোকে ২-১ গোলে হারিয়েছে জুভেন্টাস।

দলবদলের মৌসুমে সেরা চমক ছিল রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে রোনালদোর তুরিনে আসা। প্রস্তুতি ম্যাচে গোল করে সমর্থকদের আশাও বাড়িয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু লিগ শুরু হতেই আর গোলের দেখা নেই! প্রথম দুই ম্যাচে তবু ভালো খেলেছেন, তৃতীয় ম্যাচে ম্যাচের সবচেয়ে বাজে খেলোয়াড়ের ট্যাগ লাগিয়ে দেওয়া হয়েছিল রোনালদোর সঙ্গে। আজ প্রথমার্ধেও প্রায় নিষ্প্রভ থাকার পর অ্যালেগ্রির ভবিষ্যদ্বাণীকে বাড়াবাড়ি মনে হচ্ছিল।

কে জানে চ্যাম্পিয়নস লিগের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে বলেই কি না , নাকি লিগে গোলে ২৮তম শট বলেই ম্যাচের ৫০তম মিনিটে আর হতাশ হতে হয়নি রোনালদোকে। গত মৌসুমেও লিগের শুরুতে রিয়ালের হয়ে গোল পাচ্ছিলেন না কিন্তু চ্যাম্পিয়নস লিগে করছিলেন একের পর এক গোল। সেবার লিগে গোল করতে ২৮তম প্রচেষ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছিল পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডকে। জুভেন্টাসের পক্ষে প্রথম গোলও রোনালদোর এল ২৮তম শটে।

গোলটা অবশ্য রোনালদোর ক্যারিয়ারের অন্যতম সহজ গোল বলে লেখা থাকবে। বোনুচ্চির শট ফেরাতে গিয়ে হেড করেন সাসসুয়েলোর ফেরারি। কিন্তু তাঁর হেড পোস্টে লেগে চলে আসে রোনালদোর সামনে। গোলরক্ষক একদিকে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন, আশে পাশে কেউ নেই। গোলের মাত্র এক গজ দূর থেকে রোনালদো কোনো ভুল করেননি (১-০)।

দ্বিতীয় গোলটি অবশ্য পুরোপুরি রোনালদোময়। ৬৫ মিনিটে সাসসুয়েলোর এক আক্রমণ থেকে বল কেড়ে নিয়ে ডগলাস কস্তা বল দেন খেদিরাকে। সে বল টেনে নিয়ে যান এমরি চান। বক্সের কাছে এসে রোনালদোকে পাস দেন জার্মান মিডফিল্ডার। বল নিয়ে বক্সের বাঁ প্রান্তে চলে যান রোনালদো। আগুয়ান গোলরক্ষককে কোনো সুযোগ না দিয়ে বাঁ পায়ের জোরালো শটে ব্যবধান বাড়িয়ে দিলেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

জোড়া গোল করেও জোড়া দুঃখ নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন রোনালদো। ৭৮ ও ৮২ মিনিটে প্রায় নিশ্চিত দুটি গোল নষ্ট করেছেন রোনালদো। যোগ করা সময়ে সাসসুয়েলো এক গোল ফিরিয়ে দেওয়ার পর নষ্ট সুযোগগুলোর কথা আরও বেশি মনে পড়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech