গুলশান অফিসে অবরুদ্ধ এরিকসন কর্তারা

  

পিএনএস ডেস্ক: বিনা নোটিশে কর্মী ছাঁটাই ও স্বেচ্ছা অবসর স্কিম না দেয়ায় শীর্ষ কর্মকর্তাদের অবরুদ্ধ করেছেন বাংলাদেশে কর্মরত এরিকসন কর্মীরা। সোমবার (২১ আগস্ট) রাজধানীর গুলশান অ্যাভিনিউতে এরিকসনের প্রধান কার্যালয়ে দিনের কার্যক্রমের শুরুতেই এরিকসন বাংলাদেশের হেড অব কান্ট্রি ইউনিট অ্যাস্টন টড, অ্যাক্টিং হেড অব কান্ট্রি ইউনিট আবদুস সালাম ও এইচআর ম্যানেজার মো. খায়রুল বাশারকে অবরুদ্ধ করা হয়।

এ বিষয়ে এরিকসন এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন অব বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান জানান, বাংলাদেশে এরিকসনের ব্যবসা অনেক সংকুচিত হয়ে গেছে- এ কথা বলে অনেক দিন থেকেই কর্মী ছাঁটাইয়ের পাঁয়তারা চলছিল। কিন্তু এক্ষেত্রে কোনও নিয়মনীতি মানা হচ্ছে না। হঠাৎ করে বৃহস্পতিবার কর্তৃপক্ষ ৫০ জন কর্মীকে ই-মেইলের মাধ্যমে চাকরিচ্যুতির নোটিশ পাঠায়। বিনা নোটিশে এবং কোনও রকম বাড়তি সুবিধা না দিয়েই এটা করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে কর্মীরা মোবাইল ফোন অপারেটরসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো স্বেচ্ছা অবসর স্কিম দেয়ার জন্য আবেদন করেন। তবে এ আবেদনে কোনও সাড়া দেয়নি কর্তৃপক্ষ। সে কারণেই এই তাদের অবরুদ্ধ করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘তারা ব্যবসা চালাতে না পারলে ছাঁটাই করে দিক তাতে আপত্তি নেই। কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী অবসর স্কিম চালু করতে হবে।’

ছাঁটাইয়ের তালিকায় থাকা সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামন জানান, ‘সম্প্রতি এরিকসন এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন অব বাংলাদেশের নিবন্ধনের জন্য তারা আবেদন করেছেন। নিবন্ধন পেয়ে গেলে হয়তো এতো সহজে ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিতে পারত না কোম্পানি।’



পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech