জাসদ নেতার বাড়িতে অগ্নিসংযোগ

  

পিএনএস, কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমবাড়িয়ায় সাবেক কৃষক দল নেতা ও গ্রাম্য ডাক্তার লুৎফর রহমান সাবুকে কুঁপিয়ে হত্যার প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা আমবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জাসদ নেতা মশিউর রহমান মিলনের বাড়ীতে অগ্নিসংযোগ করেছে। এ সময় তারা কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা জাসদের অফিসেও হামলা ও ভাংচুর করে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, বুধবার (১১ জানুয়ারি) বেলা দেড়টায় আমবাড়ীয়া এলাকায় নিজ বাড়ী থেকে মোটরসাইকেল যোগে পার্শবর্তী চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গায় যাওয়ার পথে আমবাড়ীয়া গোরস্থানের কাছে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা দূর্বৃত্তরা তাকে এলোপাথাড়ী কুঁপিয়ে হত্যা করে ফেলে রেখে যায়।
এ ব্যাপারে মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলার চেয়ারম্যান কামারুল আরেফীন জানান, সাবু ডাক্তার বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগদান করলেও সে ছিল আওয়ামী লীগের নিবেদিত প্রাণ। সাবুকে জাসদের নেতাকর্মীরা নৃশংসভাবে হত্যা করেছে বলেও জানান তিনি।
মিরপুর উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আহম্মদ আলী জানিয়েছেন, সাবু ডাক্তার হত্যাকাণ্ড একটি বিছিন্ন ঘটনা। এই হত্যার সাথে জাসদের কোন নেতাকর্মী জড়িত নয়।
তিনি আরো জানান, এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা আমাদের জাসদ নেতা ও আমবাড়ীয়া ইউনিয়নের চেয়াম্যান মশিউর রহমান মিলনের বাড়ীতে অগ্নিসংযোগ করেছে এবং মিরপুর উপজেলা জাসদ অফিস ভাংচুর ও দুটি মোটরসাইকেল আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে।
কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার প্রলয় চিসিম এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, তাৎক্ষণিকভাবে হত্যাকাণ্ডের কারণ উদঘাটন করা না গেলেও ব্যক্তিগত কোন বিরোধের কারনে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডের কারণ অনুসন্ধান ও হত্যাকারীদের গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান চলছে।
এদিকে, এ হত্যাকাণ্ডের পর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে পুলিশি টহল জোরদার করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, নিহত সাবু ডাক্তার মৃত আব্দুল আজিজ মিয়া’র ছেলে। সম্প্রতি সে বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগ দেয়।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech