ভাগিনার হাতে মামা খুন

  

পিএনএস, সাভার : ঢাকার উপকণ্ঠ আশুলিয়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভাগিনার হাতে খুন হয়েছেন মামা। এ ঘটনায় হত্যাকারী ভাগিনা সায়েদকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে আশুলিয়ার খেজুরটেক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে আশুলিয়ার মির্জানগরে অবস্থিত গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে নিহতের লাশটি উদ্ধার করে থানা পুলিশ।

নিহত মামা বাবুল হোসেন (৬২) দিনাজপুর জেলার কোতোয়ালি থানার মৃত বদিউজ্জামানের ছেলে। তিনি পরিবার নিয়ে আশুলিয়ার খেজুরটেক এলাকায় আজিজের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

আশুলিয়া থানার ওসি (তদন্ত) এ কে এম শামীম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সকালে নিহত বাবুলের ছেলে রাব্বী ও নাতি হৃদয় সায়েদের বাড়ির পাশে ক্রিকেট খেলছিলেন। এসময় রাব্বী ও হৃদয় সায়েদের ঘরের সামনের টবে লাগানো একটি গাছের চারা উপরে ফেলে। গাছ উপরে ফেলায় সায়েদ উত্তেজিত হয়ে বাবুলের ছেলে রাব্বী ও নাতি হৃদয়কে গালমন্দের এক পর্যায়ে মারতে আসেন। ছেলে ও নাতিকে গালমন্দের বিষয়ে জানতে বাবুল এগিয়ে আসলে তাকেও গালমন্দ করতে থাকেন ভাগিনা।

এসময় উভয়ের মধ্যে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে সায়েদ একটি কাঠ দিয়ে বাবুলকে বেদম পিটিয়ে আহত করে। পরে বাবুলের বাড়ির লোকজন এগিয়ে এসে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য গণস্বাস্থ্য মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও বলেন, নিহতের মরদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

ঘটনার সঙ্গে জড়িত নিহতের ভাগিনা বাবুলকে আটক করা হয়েছে বলেও তিনি নিশ্চিত করেন। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামালা দায়ের করা হয়েছে।

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech