বিয়ানীবাজার কলেজের কার্যক্রম স্থগিত, আটক ৩

  

পিএনএস ডেস্ক : সিলেটের বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় খালেদ আহমদ লিটু গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হওয়ার ঘটনায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। উদ্ভূত এ পরিস্থিতিতে ২২ জুলাই পর্যন্ত কলেজের পাঠদান ও অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

আজ সোমবার বেলা দুইটার দিকে এ ঘটনা নিয়ে কলেজ স্টাফ কাউন্সিলের এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে নোটিশ বোর্ডের মাধ্যমে কলেজ বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়।

এদিকে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ছাত্রলীগের তিন কর্মীকে আটক করা হয়েছে। আটক তিনজনই নিহত খালেদের সঙ্গে ছিলেন।

বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ দ্বারকেশ চন্দ্র নাথ সাংবাদিকদের বলেন, নিহত খালেদ আহমদ এই কলেজের ছাত্র নন। শ্রেণিকক্ষের ভেতরে খুন হওয়ার ঘটনায় যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে দুপুরে স্টাফ কাউন্সিলের বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২২ জুলাই পর্যন্ত সব ধরনের পাঠদান ও অভ্যন্তরীণ পরীক্ষা কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে। তবে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা ও চলমান ফরম পূরণ কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আজ দুপুরে সিলেটের বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের ‘পল্লব গ্রুপ’ ও ‘পাভেল গ্রুপ’-এর মধ্যে সংঘর্ষের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে ছাত্রলীগের কর্মী খালেদ আহমদ নিহত হন।

পিএনএস/জে এ মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech