টাঙ্গাইলে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর আত্মহত্যা - মফস্বল - Premier News Syndicate Limited (PNS)

টাঙ্গাইলে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর আত্মহত্যা

  

পিএনএস ডেস্ক : টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে বিয়ের এক বছরের মাথায় ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ অজন্তা রানী পাল রহস্যজনকভাবে আত্মহত্যা করেছেন। স্বামী তুলসী চন্দ্র পাল, স্বশুড় নারায়ন চন্দ্র পাল এবং শাশুড়ী কল্পনা রাণী পালের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরেই অজন্তা রানী কীটনাশক পানে আত্মহত্যা করেছে বলে এলাকাবাসীর ধারণা।

জানা যায়, বছর খানেক আগে ধনবাড়ী উপজেলার কয়ড়া মধ্যপাড়া গ্রামের নারায়ন চন্দ্র পালের ছেলে তুলসী চন্দ্র পালের সাথে ময়মনসিংহের ফুলবাড়ী উপজেলার বাট্টা উত্তরপাড়া গ্রামের দ্বীনবন্ধু চন্দ্র পালের মেয়ে অজন্তা রানী পাল (১৬) বিয়ে হয়। বিয়ের সময় নগদ ৮০ হাজার টাকা ও স্বর্ণালংকার যৌতুক হিসাবে দেয়া হয় বলে মেয়ের বাবা জানান।

বিয়ের পর থেকে আরো যৌতুক এনে দেয়াসহ নানা অজুহাতে ওই বালিকা বধুকে মাঝে মধ্যেই শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করা হতো। এরই এক পর্যায়ে গত সোমবার (১১ জুন) অন্তঃসত্ত্বা মেয়েটি কীটনাশক পান করে। গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার সকালে ওই গৃহবধু মারা যায়।

স্থানীয় সাবেক ইউপি মেম্বার মজিবর রহমান জানান, স্বামী ও শাশুড়ীর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরেই মূলত মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে। তবে মেয়ের বাবার সাথে কথা বলে বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

নিহতের স্বামী তুলসী চন্দ্র পাল নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, এমনিতেই রাগ করে কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করেছে।
ধনবাড়ী থানার ওসি মজিবর রহমান জানান, এ ব্যাপারে কেউ তাকে কোন কিছু জানায়নি। জানালে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech