গলা কাটা গুজবে কান না দেওয়ার আহবান ডিমলা থানা পুলিশের

  

পিএনএস, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : আইন সবার জন্য সমান। তাই আইন কে হাতে তুলে না নিয়ে, গলা কাটা গুজবে কান না দেওয়ার প্রতি স্থানীয় বাসিন্দাদের আহব্বান জানিয়েছেন ডিমলা থানা পুলিশ। সম্প্রতি দেশ জুরে গলা কেটে নেয়ার অংশ বিশেষ হিসেবে এই বক্তব্য দিয়েছেন ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্য ওসি মোঃ মফিজ উদ্দিন শেখ।

২২ জুলাই থানায় আইন সহায়তাকারীদের আলোচনায় তিনি আরো বলেন, সমাজে হরহামেশা শোনা যাচ্ছে গলা কাটা বের হয়েছে। কেউ বলে এক জায়গায় একজনের গলায় ছুিড় লাগিয়েছে, অন্য জন বলে আমি শুনলাম কয় একজন কে মেডিকেলে ভর্তি করেছে। নানান জনের নানান কথা। এ সব উড়োকথার কোন সত্যতা নেই। এটি একটি বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন গুজোব। এই ধরনের গুজোবে কান না দিয়ে সবাইকে সচেতন হওয়া দরকার।

এ বিষয়ে ওসি তদন্ত মোঃ সোহেল রানা বলেন, গলা কাটা সন্দেহে অনেকে আইন হাতে তুলেনিয়ে মেরে ফেলেছে।

একটি বারও কি ভেবেছেন আপনারা যাকে মেরে ফেললেন সে তো কারোও না কারো সন্তান? হয়তো বা তার উপার্জনই তার পরিবার জীবিকা নির্বাহ করে? আদৌ সে কি ঐ সব কাজে সম্পৃক্ত কিনা, তাকি আপনারা ভেবে দেখেছেন? হতে পারে সে মানসিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধি বা নেশায় আসক্ত? তাহলে এ হত্যার প্রকৃত দায়ী কে হবে?

অতএব অজানা কোন লোককে সন্দেহ হলে, কোনো কিছু করার আগে স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ,চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও গ্রামপুলিশ দের অবগত করবেন।

পারলে থানায় খবর দিবেন, আইন আপনাদের সেবায় সর্বদা নিয়োজিত থাকবে। এরই মধ্যে জনগণ কে সচেতন করার জন্য বিজ্ঞাপনবার্তা দেওয়া হচ্ছে।

অপরদিকে উপজেলা শিক্ষা অফিসার শ্রী স্বপন কুমার দাস বলেন, উপরোক্ত ভিত্তহীন গুজবের কারনে অনেক শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে আসা বন্ধ করেছে। এমনকি অনেক অভিভাবকগণ এমনটা মনে করেন।
আমি সেই সব অভিভাবকদের প্রতিবেদকের মাধ্যমে বলবো গুজবে কান না দিয়ে আপনারা সচেতন হয়ে সন্তানদের নিয়মিত বিদ্যালয়ে পাঠান।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech