দুই প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি, মুক্তিযোদ্ধার ছেলেকে পুলিশে সোপর্দ

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে কটূক্তি করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছবিসহ পোস্ট দেয়ার অভিযোগে রাজশাহীতে এক যুবককে ধরে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। ওই যুবক একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার ছেলে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাড়িও উপহার পেয়েছে তার পরিবার।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজশাহীর পবা উপজেলার হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান বজলে রেজভি আল হাসান মুঞ্জিল স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সহায়তায় ফিরোজ কবীর (২৪) নামের ওই যুবককে পুলিশের হাতে তুলে দেন।

ফিরোজ কবীর হরিপুর এলাকার প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক আলী সরকারের ছেলে।

দামকুড়া থানার ওসি মাহবুব হোসেন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ফিরোজ কবীর কয়েক দিন ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি দিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিচ্ছিলেন। এসব ছবির সঙ্গে কটূক্তি করে বিভিন্ন কথাও লিখছিলেন।

তিনি জানান, স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বিষয়টি নজরে এলে তারা ফিরোজকে নিয়ে হরিপুর ইউপি কার্যালয়ে যান। প্রাথমিকভাবে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত হওয়ার কারণে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেন ইউপি চেয়ারম্যান মুঞ্জিল।

চেয়ারম্যান মুঞ্জিল জানান, ফিরোজ কবীর একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার পরিবারকে বাড়িও দিয়েছেন। ফিরোজের কাছ থেকে এ ধরনের বিষয় আশা করা যায় না। তাই আইনগত প্রক্রিয়ায় যাওয়া হয়েছে। আমরা ফিরোজ কবীরের শাস্তি দেখতে চাই।

এ ব্যাপারে দামকুড়া থানার ওসি মাহবুব হোসেন বলেন, ফিরোজ তার ফেসবুক আইডিতে যেসব আপত্তিকর পোস্ট দিয়েছিলেন সেগুলোর স্ক্রিনশট রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়েরের পর বুধবার সকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন