ইসলাম

যাকাত নিয়ে ৮ প্রশ্ন ও তার উত্তর

  16-04-2022 06:08PM

পিএনএস ডেস্ক :ইসলামের ধর্মের পাঁচটি স্তম্ভের মধ্যে যাকাত অন্যতম। হজরত মোহাম্মদ (সা:) যখন ৬২২ খ্রিস্টাব্দে মদিনায় গিয়ে ইসলামী রাষ্ট্র ব্যবস্থা চালু করেন, তখন ওই রাষ্ট্রে যাকাত ব্যবস্থা চালু হয়েছে।কিন্তু যাকাত কীভাবে কতটুকু দিতে হবে সে বিষয়ে অনেকের মধ্যেই আছে নানা প্রশ্ন। ইসলামী চিন্তাবিদরা বলে থাকেন যে, মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কুরআনে যাকাত সম্পর্কে নির্দেশনা দেয়া আছে। তারপরেও পবিত্র কোরআনের বিধান সম্পর্কিত ব্যাখ্যাগুলো দরকার হয় বিস্তারিত জানার জন্য।ইসলামিক ফাউন্ডেশনের

‘৪ ধরনের নারীকে বিয়ে করলে সংসার কখনও সুখের হয় না’

  16-04-2022 03:08PM

পিএনএস ডেস্ক :মানবকল্যাণের ধর্ম ইসলাম। ইসলামের উদ্দেশ্যই হলো মানবের জাগতিক ও পারলৌকিক কল্যাণ। মানুষের সব প্রাকৃতিক ও সামাজিক চাহিদা সহজ, সুন্দর, মার্জিত ও পরিশীলিত উপায়ে পূরণ করাই ইসলামি শরিয়তের বিধান। এ জন্য সৃষ্টি হয়েছে বিয়ে নামক বিধানের।ইসলামে বিয়ের গুরুত্ব অপরিসীম, পবিত্র কুরআন ও হাদিসে এ বিষয়ে রয়েছে বিষদ বর্ণনা। সাধারণত বিয়েকে ইসলাম উৎসাহিত করে তথাপি অবস্থা ও পারিপার্শ্বিকতার উপর ভিত্তি করে এটি কোন কোন ব্যক্তির জন্য ফরজ হয়, কারও জন্য মুস্তাহাব, কারও জন্য শুধুই হালালও

যে ১১ জিনিসের জাকাত দেওয়া ফরজ

  15-04-2022 02:48PM

পিএনএস ডেস্ক : ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের মধ্যে তৃতীয়টি হচ্ছে জাকাত। ঈমান ও নামাজ পরই জাকাতের স্থান। কোরআন মজিদের ৩২ জায়গায় জাকাতের কথা বলা হয়েছে। তার মধ্যে ২৮ জায়গায় নামাজ ও জাকাতের কথা একত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।জাকাত সম্পদকে পবিত্র করে, বিত্তশালীদের পরিশুদ্ধ করে, দারিদ্র্য মোচন করে, উৎপাদন বৃদ্ধি করে, অর্থনৈতিক বৈষম্য হ্রাস করে ও সমাজে শান্তি আনে। জাকাত দেওয়ার জন্য অনেকে সারা বছরজুড়ে উন্মুখ হয়ে থাকেন। আবার অনেকে জাকাত দিতে চাইলেও জানেন না যে, কোন কোন জিনিসের জাকাত ফরজ হয়ে থাকে। চলুন

যেসব সম্পদের ওপর জাকাত ফরজ নয়

  15-04-2022 02:18PM

পিএনএস ডেস্ক : জাকাত ইসলামের পঞ্চ স্তম্ভের মধ্যে একটি। জাকাত আরবী শব্দ। এর মূল ধাতু হচ্ছে যাকয়ুন। এর চারটি অর্থ রয়েছে। যেমন- ১. পবিত্রতা ২.বৃদ্ধি পাওয়া ৩. প্রশংসা ৪. প্রাচুর্যতা। শরিয়তের পরিভাষায় জাকাত বলা হয়- সম্পদশালীদের উপর আল্লাাহর নির্ধারিত সেই অংশ যা আদায় করা ওয়াজিব।জাকাতের মাধ্যমে সম্পদ বৃদ্ধি পায়, পবিত্র হয় এবং অন্য দিকে দারিদ্র্য সমস্যা দূর করে। দ্বিতীয় হিজরীতে জাকাত ফরজ হয় এবং নবম হিজরীতে জাকাত ইসলামী রাষ্ট্রের রাজস্বকর হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। চার প্রকার সম্পদের উপর

রোজা কবুল হওয়ার ৫ আমল

  15-04-2022 12:01PM

পিএনএস ডেস্ক : সাধারণত পানাহার ও কিছু জৈবিক চাহিদা পূরণ থেকে বিরত থাকাকে রোজা মনে করা হয়। কিন্তু এটাই রোজার শেষকথা নয়। রোজার কয়েকটি স্তর রয়েছে। প্রত্যেক স্তরের মর্যাদায় রয়েছে তারতম্য। ইমাম গাজালি (রহ.) তার বিখ্যাদ গ্রন্থ এহইয়াউ উলুমিদ্দিন গ্রন্থে রোজার তিনটি স্তর বর্ণনা করেছেন।ক. সাধারণের রোজা হলো- পানাহার ও জৈবিক চাহিদা থেকে বিরত থাকা।খ. বিশেষ শ্রেণির রোজা হলো- পেট ও লজ্জাস্থানের চাহিদা পূরণের সঙ্গে সঙ্গে তার চোখ, কান, জিহ্বা, হাত, পা অর্থাৎ তার সব অঙ্গ পাপমুক্ত রাখা।গ.

রমজানে দানের ফজিলত অনেক বেশি

  14-04-2022 12:14PM

পিএনএস ডেস্ক : সব জিনিসের একটা মৌসুম থাকে। রমজানুল মোবারক হলো ইবাদত-বন্দেগির মৌসুম। মৌসুমের সময় কোনো জিনিস যত বেশি সঞ্চয় করা যায় অন্য সময়ে তা সম্ভব হয় না। এ মাসে বান্দা যত বেশি আমল করবে তার পরকালীন ভাণ্ডার ততই সমৃদ্ধ হবে। রমজানের অন্যতম আমল হলো দান-সদকা। গরিব-দুঃখী মানুষের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়া। দানশীলতা ও বদান্যতা প্রদর্শনের মাধ্যমে ইহকালীন কল্যাণ ও পারলৌকিক মুক্তির পথ প্রশস্ত করা। বাকি ১১ মাসের চেয়ে এ মাসে দানের ফজিলত অনেক বেশি। মহানবী (সা:) এই মাসে এত পরিমাণ

রাতের যে দোয়া আল্লাহ ফিরিয়ে দেন না

  14-04-2022 02:21AM

পিএনএস ডেস্ক : আল্লাহর চেয়ে উত্তম দাতা ও সাহায্যকারী আর কেউ নেই। একমাত্র তিনিই বান্দার সব অভাব-অভিযোগ পূরণ করতে পারেন। যে ব্যক্তি বেশি বেশি আল্লাহকে ডাকেন এবং তার কাছে প্রার্থনা করেন মহান আল্লাহ তায়ালা তাকে বেশি পচ্ছন্দ করেন। রাতের দোয়াকে মহান আল্লাহ সবচেয়ে বেশি পছন্দ করেন। রাতে এমন একটি দোয়া রয়েছে যেটি করলে আল্লাহপাক ফেরত দেন না। বান্দার সব দোয়া আল্লাহ তাআলা কবুল করে নেন। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যখন তোমাদের কেউ রাতে জেগে আল্লাহরকাছে দোয়া করে, আল্লাহ তাআলা

গৃহকর্মীকে জাকাত ও ফিতরা দেওয়া যাবে কী?

  13-04-2022 03:45PM

পিএনএস ডেস্ক :গৃহকর্মী যদি ফকির বা মিসকিনের পর্যায়ে পড়ে যায়, তাহলে তাকে জাকাত ও ফিতরা দেওয়া যাবে। যদি কোন গৃহকর্মী দিন আনে দিন খায়। মানে, তাদের তেমন কোনো সঞ্চয় নেই। যদি এমন হয়, তাহলে তাদের জাকাত কিংবা ফিতরা দিতে কোনো রকমের বাধা নেই।তবে, আপনি যদি তাকে জাকাত ও ফিতরার টাকা দেন, তাহলে অবশ্যই তাকে বলে দিতে হবে। না হলে সে ভাববে আপনি কাজের জন্য বোনাস দিচ্ছেন কিংবা সাহায্য করছেন। যদি না বলে দেন, তাহলে জাকাত কিংবা ফিতরা কোনোটাই আদায় হবে না। তাই, অবশ্যই আপনাকে বলে দিতে হবে সুনির্দিষ্টভাবে।

রোজা রেখে স্ত্রীকে চুম্বন করা যাবে কী?

  13-04-2022 12:04PM

পিএনএস ডেস্ক : এমন কিছু কাজ আছে, যার দ্বারা রোজার কোনো ক্ষতি হয় না। অথচ অনেকে এগুলোকে রোজাভঙ্গের কারণ মনে করে। ফলে এমন কোনো কাজ হয়ে গেলে রোজা ভেঙ্গে গেছে মনে করে ইচ্ছাকৃত পানাহার করে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে চুমু খাওয়া।বীর্যপাত ঘটা বা সহবাসে লিপ্ত হওয়ার আশঙ্কা না থাকলে স্ত্রীকে চুমু খাওয়া জায়েয। এতে রোজার কোনো ক্ষতি হবে না। তবে বীর্যপাত ঘটা বা সহবাসে লিপ্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকলে স্ত্রীকে চুমু খাওয়া যাবে না। যদি বীর্যপাত হয় তাহলে রোজা ভেঙ্গে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।হজরত আয়েশা রাযি.

রোজায় অসুস্থ ব্যক্তির জন্য যা করণীয়

  10-04-2022 05:53PM

পিএনএস ডেস্ক : রোজা আল্লাহ তায়ালার ফরজ বিধান। ইসলামে মানুষের শক্তি, সামর্থ্য ও সাধ্যের বাইরে কোনো বিধান চাপিয়ে দেওয়া হয়নি। আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘আল্লাহ কারও ওপর এমন কষ্টদায়ক দায়িত্ব অর্পণ করেন না, যা তার সাধ্যাতীত। ’ (সুরা বাকারা : ২৮৬)।অনেকে না জানার কারণে কঠিন অসুস্থ হয়েও রোজা রাখেন। অথচ শরিয়ত তাদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা রেখেছে। আবার অনেকে সামান্য অসুস্থতার অজুহাতে রোজা রাখতে চায় না। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ মেনে প্রয়োজনীয় ওষুধ সেবন করে রোজা রাখা যায়।আসুন জেনে নেই