নড়াইলে প্রেমিককে বেঁধে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ, ভিডিও ধারণ

  

পিএনএস ডেস্ক : প্রেমিককে গাছের সঙ্গে হাত-পা বেঁধে রাখলো। এরপর তারই চোখের সামনে প্রেমিকাকে একে একে ধর্ষণ করলো তিন লম্পট। গণধর্ষণের সেই দৃশ্য চেয়ে চেয়ে দেখলো প্রেমিক। কিন্তু তার কিছুই করার ছিল না। একই সঙ্গে বখাটেরা সেই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে রাখে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

গত মঙ্গলবার রাতে নড়াইল সদর উপজেলার হবখালি ইউনিয়নের সুবুদ্ধিডাঙ্গা গ্রামে এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে। পরদিন ৩ ধর্ষণের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা করা হয়েছে।

মামলায় বলা হয়, মঙ্গলবার রাতে প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে যশোর থেকে নড়াইলে আসছিলো অষ্টম শ্রেণীর ওই শিক্ষার্থী। পথিমধ্যে রাত ৯টার দিকে হবখালী আদর্শ কলেজ এলাকায় পৌঁছালে ৮-৯ জন লোক তাদের পথরোধ করে। এ সময় তারা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে নেয়ার কথা বলে তাদের হবখালী বাজারের দিকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তারা প্রেমিককে হবখালী কলেজের পাশে নিয়ে গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখে। এরপর তার চোখের সামনে তার প্রেমিকাকে ধর্ষণ করে একে একে তিনজন। ধর্ষকরা মেয়েটির বুক, মুখ ও হাতের বিভিন্ন অংশে জখম করে। এ সময় ভিডিও-ও ধারণ করা হয়। বিষয়টি কাউকে জানালে তারা ইন্টারনেটে নগ্ন ভিডিও ছাড়ার হুমকি দেয়।

ধর্ষণের এক পর্যায়ে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে অভিযুক্ত যুবকরা তাকে পাট ক্ষেতে ফেলে চলে যায়। রাত ১২টার দিকে প্রেমিক স্থানীয় তিন ব্যক্তিকে নিয়ে প্রেমিকাকে উদ্ধার করে। পরে পুলিশ গিয়ে প্রেমিক-প্রেমিকাকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর থানায় নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে নড়াইল সদর থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, পুলিশ গিয়ে ওই প্রেমিক-প্রেমিকা উদ্ধার করে। বুধবার দুপুরে নড়াইল সদর হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও তিনি জানান।

পিএনএস/জে এ /

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech