অভাবের তাড়নায় রাস্তায় সবজি বিক্রি করছেন আটবারের স্বর্ণজয়ী অ্যাথলেট

  

পিএনএস ডেস্ক : রাজ্যস্তরে ওয়াকিং কম্পিটিশনে আটটি স্বর্ণ রয়েছে তার। কলকাতায় অনুষ্ঠিত একাধিক প্রতিযোগিতাতেও পেয়েছেন পদক। অথচ ঝাড়খণ্ডের অ্যাথলেট গীতা কুমারিকে দিন কাটাতে হচ্ছে সবজি বিক্রি করে।

রামগড় জেলায় রাস্তার ধারে বসে সবজি বিক্রি করছিলেন গীতা, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন ছবি ভাইরাল হয়। অবশ্য বিষয়টি নজরে আসতেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পাশে দাঁড়িয়েছে গীতা কুমারির।

গীতা কুমারির ছবি নজরে আসতেই এক সমাজকর্মী মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। পরে মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেনের উদ্যোগে জেলা প্রশাসকের পক্ষে সরকারি সাহায্য পৌঁছে যায় গীতার হাতে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, গীতাকে রাস্তার ধারে বসে সবজি বিক্রি করতে দেখেন সমাজকর্মী যোগীতা ভায়ানা। তৎক্ষণাৎ তিনি টুইট করে মুখ্যমন্ত্রীর সাহায্য প্রার্থনা করেন গীতার জন্য। হেমন্ত সোরেন গীতার পরিবারের কাছে সরকারি সাহায্য পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দেন বোকারোর ডেপুটি কমিশনারকে।

রামগড়ের ডিসি সন্দীপ সিং গীতার পরিবারের হাতে ৫০ হাজার রুপির চেক তুলে দেন। সেই সঙ্গে অনুশীলন চালিয়ে যাওয়ার জন্য গীতাকে প্রতি মাসে ৩ হাজার রুপি করে দেওয়া হবে বলেও প্রতিশ্রুতি দেন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন