সুন্দরগঞ্জে বন্যার সাথে তাল মিলিয়ে চলছে নদী ভাঙ্গন

  

পিএনএস, সুন্দরগঞ্জ: গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় বন্যার সাথে তাল মিলিয়ে চলছে তিস্তা নদীর তীব্র ভাঙ্গন।

গত ৭ দিন থেকে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে এলাকায় বন্যা দেখা দিয়েছে। এতে করে হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। দূর্গত এলাকার মানুষদের মাঝে দেখা দিয়েছে বিশুদ্ধ পানীয় জল, খাদ্য ও ঔষধের তীব্র সংকট। পানিবন্দি মানুষেরা বন্যা নিয়ন্ত্রন বেড়ি বাঁধ ও উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়ে অবর্ণীয় জীবন-যাপন করছেন। এলাকাগুলো হচ্ছে তারাপুর, বেলকা, হরিপুর, কাপাসিয়া, কঞ্চিবাড়ী, শান্তিরাম ও শ্রীপুর।

বন্যার পানি বাড়ার সাথে পাল্লা দিয়ে চলছে তিস্তার ব্যাপক ভাঙ্গন। সর্বস্বান্ত হচ্ছে তিস্তা পাড়ের বানভাসি মানুষেরা। ইতোমধ্যে কাপাসিয়া, লালচামার, লখিয়ারপাড়া, উজান বোচাগাড়ী, ছয়ঘড়িয়া, ভাটি বুড়াইল, উজান বুড়াইল, রাঘবসহ বিভিন্ন স্থানে তিস্তার তীব্র ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ২’শ পরিবারের ঘর-বাড়ি ও আবাদি জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙ্গন মুখে পড়েছে শত শত পরিবারের ঘর-বাড়ি, বসত ভিটা ও হাজার হাজার হেক্টর আবাদি জমি।

এদিকে সরকারিভাবে বন্যাদূর্গত ও নদীভাঙ্গন পরিবারগুলোর মাঝে ৬০ মেট্রিক টন চাল ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস.এম. গোলাম কিবরিয়া নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, অতিরিক্ত বরাদ্দের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে চাহিদাপত্র প্রেরণ করা হয়েছে।



পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech