ভোলায় প্রতিবেশী দাদার বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ

  

পিএনএস ডেস্ক : ভোলায় প্রতিবেশী দাদার বিরুদ্ধে তৃতীয় শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিশুটির পরিবারের সদস্যরা স্থানীয়দের সহযোগীতায় তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। বুধবার (৩ মার্চ) দুপুরে সদর উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত মো. ছালাউদ্দিন মীর (৪৫) রাজাপুর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ও স্থানীয় জনতা বাজারের ব্যবসায়ী বলে জানা গেছে।

ভুক্তভোগী শিশুটির চাচিসহ পরিবারের সদস্যরা জানান, দুপুরের দিকে তার চিকিৎকার শুনে ঘরে গিয়ে দেখা যায় রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। ওই সময় অভিযুক্ত ছালাউদ্দিন মীর ঘর থেকে দৌঁড়ে পালিয়ে যান। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুঁটে আসেন। এরপর তাকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ভোলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সিরাজ উদ্দিন জানান, শিশুটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এখন আগের চেয়ে একটু ভালোর দিকে।

ভোলা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এনায়েত হোসেন বলেন, ‘ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এছাড়াও আমরা অভিযুক্তকে আটকের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।’

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন