লঞ্চডুবির ঘটনায় এক নারীর লাশ উদ্ধার, নিখোঁজ অনেকে

  

পিএনএস ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদীতে ‘সাবিত আল হাসান’ নামের মুন্সিগঞ্জগামী একটি লঞ্চ শতাধিক যাত্রী নিয়ে ডুবে গেছে। এতে করে কিছু যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হলেও নারী-পুরুষ অনেক যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন। উদ্ধার হওয়া এক নারীকে হাসপাতালে নেয়ার পর তিনি মারা যান।

রোববার (৪ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৬টার দিকে শীতলক্ষ্যা নদীর চর সৈয়দপুর এলাকার চায়না ব্রিজ-সংলগ্ন স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার সন্ধ্যা ৬টার দিকে সাবিত আল হাসান নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ শতাধিক যাত্রী নিয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে মুন্সিগঞ্জের দিকে রওনা দেয়। ওইসময় মালবাহী দ্রুতগামী একটি জাহাজ ধাক্কা দিলে মুহূর্তের মধ্যে লঞ্চটি ডুবে যায়। তাদের অনেকেই সাঁতরে তীরে উঠেছেন। তবে অনেকেই নিখোঁজ রয়েছেন।

এদিকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, লঞ্চডুবির ঘটনায় একজন তরুণীর লাশ উদ্ধার করে হাসপাতালে আনা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ নৌপুলিশের ইন্সপেক্টর শহিদুল ইসলাম জানান, শীতলক্ষ্যা নদীতে চায়না ব্রিজের নিচে সাবিত আল হাসান নামের একটি লঞ্চ ডুবেছে। ঘটনাস্থলে নৌপুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা কাজ করছেন। লঞ্চে থাকা অনেক যাত্রী নিঁখোজ রয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন জানান, লঞ্চডুবির ঘটনায় অনেক যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন। আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার কাজ করতে ব্যাঘাত ঘটছে। বৃষ্টি ও বাতাস কমলে উদ্ধারকাজ শুরু করা হবে।

রাত পৌনে ৯টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ফায়ার সার্ভিস ও উদ্ধারকারী জাহাজ উদ্ধার কাজ শুরু করেনি।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন