জোড়া আত্মঘাতী গোলে ডুবল পর্তুগাল

  20-06-2021 12:19AM

পিএনএস ডেস্ক: একদিকে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল, অন্যদিকে সর্বোচ্চ তিনবারের শিরোপা জয়ী দল জার্মানি। ফলে লড়াই যে হবে উত্তেজনাপূর্ণ, তার আভাস ছিল আগেই। মাঠের খেলায়ও মিলল এর ছাপ। দুই দলের আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে মিলেছে রোমাঞ্চকর এক লড়াই দেখার সুযোগ।

যেখানে ছয় গোলের ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে চলতি ইউরো কাপে নিজেদের প্রথম জয় তুলে নিয়েছে জার্মানি। নিজেদের ইউরোর ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ৪ গোল হজম করে ম্যাচটি ৪-২ গোলে হেরেছে পর্তুগাল।

ম্যাচে বেশি গোল করেছে পর্তুগালের খেলোয়াড়রাই। বিশেষ করে প্রথমার্ধে হওয়া তিন গোলের তিনটিই ছিল তিন পর্তুগিজ খেলোয়াড়ের। কিন্তু এর মধ্যে দুইটিই ছিল আত্মঘাতী। ফলে ২-১ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যেতে হয়েছে ইউরোর বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের।

পরে দ্বিতীয়ার্ধেও হয়েছে সমান তিন গোল। যেখানে দুই গোল করে ম্যাচের ফল নিজেদের পক্ষে করে নিয়েছে জার্মানি। ম্যাচে এক গোল ও এক এসিস্ট করে ৪-২ গোলে পরাজয়ের সাক্ষী হতে হয়েছে পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে।

একদিকে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল, অন্যদিকে সর্বোচ্চ তিনবারের শিরোপা জয়ী দল জার্মানি। ফলে লড়াই যে হবে উত্তেজনাপূর্ণ, তার আভাস ছিল আগেই। মাঠের খেলায়ও মিলল এর ছাপ। দুই দলের আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে মিলেছে রোমাঞ্চকর এক লড়াই দেখার সুযোগ।

যেখানে ছয় গোলের ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে চলতি ইউরো কাপে নিজেদের প্রথম জয় তুলে নিয়েছে জার্মানি। নিজেদের ইউরোর ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ৪ গোল হজম করে ম্যাচটি ৪-২ গোলে হেরেছে পর্তুগাল।

শুধু তাই নয়, ইউরো কাপের ইতিহাসের প্রথম ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে এক ম্যাচে চার গোল হজমের বিব্রতকর রেকর্ডটিও নিজেদের করে নিয়েছে পর্তুগাল। এছাড়া এ নিয়ে মাত্র দ্বিতীয়বার কোনো মেজর টুর্নামেন্টে (ইউরো অথবা বিশ্বকাপ) এক ম্যাচে চার গোল হজম করল তারা।

এর আগে ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে জার্মানির কাছেই চার গোল হজম করেছিল পর্তুগাল। সেদিন জার্মানির জয় ছিল ৪-০ গোলে। এ জয়ের সুবাদে পর্তুগালের বিপক্ষে ২১ বছর ধরে অপরাজিত থাকল জার্মানি। দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে পর্তুগালের সবশেষ জয় ছিল ২০০০ সালে।

অথচ আলিয়াঞ্জ এরেনায় হওয়া ম্যাচটিতে বেশি গোল করেছে পর্তুগালের খেলোয়াড়রাই। বিশেষ করে প্রথমার্ধে হওয়া তিন গোলের তিনটিই ছিল তিন পর্তুগিজ খেলোয়াড়ের। কিন্তু এর মধ্যে দুইটিই ছিল আত্মঘাতী। ফলে ২-১ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যেতে হয়েছে ইউরোর বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের।

পরে দ্বিতীয়ার্ধেও হয়েছে সমান তিন গোল। যেখানে দুই গোল করে ম্যাচের ফল নিজেদের পক্ষে করে নিয়েছে জার্মানি। ম্যাচে এক গোল ও এক এসিস্ট করে ৪-২ গোলে পরাজয়ের সাক্ষী হতে হয়েছে পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে। সবমিলিয়ে ম্যাচের ছয় গোলের মধ্যে চারটিই ছিল পর্তুগালের খেলোয়াড়দের।

কিন্তু সেই চার গোলের দুইটি আবার নিজেদের জালেই ঢুকিয়েছেন রুবেন ডিয়াজ ও রাফায়েল গুইরেইরো। যে কারণে দ্বিতীয়ার্ধে জার্মানির দুই খেলোয়াড় গোল করেও, তারা ম্যাচটি জিতেছে ৪-২ গোলের ব্যবধানে। জার্মানির পক্ষে গোল দুইটি করেছেন কাই হাভার্জ ও রবিন গোসেনস।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন